1. abrajib1980@gmail.com : মো: আবুল বাশার রাজীব : মো: আবুল বাশার রাজীব
  2. abrajib1980@yahoo.com : মো: আবুল বাশার : মো: আবুল বাশার
  3. chakroborttyanup3@gmail.com : অনুপ কুমার চক্রবর্তী : অনুপ কুমার চক্রবর্তী
  4. Azharislam729@gmail.com : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়
  5. farhana.boby87@icloud.com : Farhana Boby : Farhana Boby
  6. mdforhad121212@yahoo.com : মোহাম্মদ ফরহাদ : মোহাম্মদ ফরহাদ
  7. harun.cht@gmail.com : চৌধুরী হারুনুর রশীদ : চৌধুরী হারুনুর রশীদ
  8. shanto.hasan000@gmail.com : রাকিবুল হাসান শান্ত : রাকিবুল হাসান শান্ত
  9. msharifhossain3487@gmail.com : Md Sharif Hossain : Md Sharif Hossain
  10. humiraproma8@gmail.com : হুমায়রা প্রমা : হুমায়রা প্রমা
  11. dailyprottoy@gmail.com : প্রত্যয় আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রত্যয় আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  12. namou9374@gmail.com : ইকবাল হাসান : ইকবাল হাসান
  13. hasanuzzamankoushik@yahoo.com : হাসানুজ্জামান কৌশিক : এ. কে. এম. হাসানুজ্জামান কৌশিক
  14. masum.shikder@icloud.com : Masum Shikder : Masum Shikder
  15. niloyrahman482@gmail.com : Rahman Rafiur : Rafiur Rahman
  16. Sabirareza@gmail.com : সাবিরা রেজা নুপুর : সাবিরা রেজা নুপুর
  17. prottoybiswas5@gmail.com : Prottoy Biswas : Prottoy Biswas
  18. rajeebs495@gmail.com : Sarkar Rajeeb : সরকার রাজীব
  19. sadik.h.emon@gmail.com : সাদিক হাসান ইমন : সাদিক হাসান ইমন
  20. mhsamadeee@gmail.com : M.H. Samad : M.H. Samad
  21. Shazedulhossain15@gmail.com : মোহাম্মদ সাজেদুল হোছাইন টিটু : মোহাম্মদ সাজেদুল হোছাইন টিটু
  22. shikder81@gmail.com : Masum shikder : Masum Shikder
  23. showdip4@gmail.com : মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ : মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ
  24. shrabonhossain251@gmail.com : Sholaman Hossain : Sholaman Hossain
  25. tanimshikder1@gmail.com : Tanim Shikder : Tanim Shikder
  26. riyadabc@gmail.com : Muhibul Haque :
  27. Fokhrulpress@gmail.com : ফকরুল ইসলাম : ফকরুল ইসলাম
  28. uttamkumarray101@gmail.com : Uttam Kumar Ray : Uttam Kumar Ray
  29. msk.zahir16062012@gmail.com : প্রত্যয় নিউজ ডেস্ক : প্রত্যয় নিউজ ডেস্ক

মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ন হয়েও ঠাকুরগাঁওয়ের প্রশান্ত’র পরিবারে নেমে এসেছে দু:শ্চিন্তা

  • Update Time : সোমবার, ১২ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩৭৪ Time View

বদরুল ইসলাম বিপ্লব, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে প্রশান্ত দেবনাথ নামে এক শিক্ষার্থী দরিদ্র পিতামাতার সংসারে জন্ম নিলেও কঠোর অধ্যবসায় দিয়ে ইতোমধ্যে মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। এতে এলাকার মানুষ তাকে নিয়ে উচ্ছাস প্রকাশ করলেও পরিবারের লোকজন রয়েছে চরম হতাশায়। কারণ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি ও নিয়মিত খরচ চালানোর ক্ষমতা তার ফেরিওয়ালা পিতার নেই।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বড়গাঁও ইউনিয়নের কেশুরবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা দিনমজুর বির্ষম দেবনাথের ছেলে প্রশান্ত দেবনাথ। বাবা মায়ের দুই ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে সবার বড় সন্তান প্রশান্ত।নিজের মনোবল, কঠোর অধ্যবসায় দিয়ে সে এবার ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস কোর্সের প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ন হয়েছে। পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে হতদরিদ্র দিনমুজুরের ছেলে প্রশান্ত। ভর্তি পরীক্ষায় সে ১০০ নম্বরেরমেধ্যে পেয়েছে ৬৮.২৫ নম্বর।

বাবা-মায়ের স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে সে এলাকার মানুষের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে দাঁড়িয়েছে । তার মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলে এলাকার নারী পুরুষ সবাই খুশি। ছুটছেন তাকে একনজর দেখার জন্য।

তার এই সাফল্যে এলাকায় সকল শ্রেনীর মানুষের মাঝে বইছে আনন্দের বন্যা। কিন্তু আনন্দের মাঝেও বাবা মায়ের মনে অজানা কষ্ট বাসা বেধেছে।
প্রশান্তের মা দ্বিপি রানী দেবনাথ বলেন, ছেলেকে মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করাতে কত টাকা লাগবে জানি না। লোকমুখে শুনেছি ভর্তি হতে কমপক্ষে ৫০ হাজার টাকা লাগবে। কিন্তু এত টাকা আমরা গরীব মানুষ কোথায় পাব?

তিনি আরো বলেন, একসময় আমরা তাঁতের কাজ করতাম। লকিন্তু লোকসান গুনতে গুনতে পুঁজি হারিয়ে ফেলেছি। এখন ওর বাবা গ্রামে ফেরি করে যা আয় হয় তা দিয়ে সংসার চলে। কলেজে ভর্তির খরচ কিভাবে বহন করব এই চিন্তায় দিশেহারা হয়ে পড়েছি।

প্রশান্ত দেবনাথ বলেন, ছোটবেলা থেকে ইচ্ছে ছিলো ভাল কলেজে লেখাপড়া করার। এজন্য নিরলস পরিশ্রম করে গেছি। বাবা মায়ের ইচ্ছা ছিল আমাকে ডাক্তার বানানোর। তাদের স্বপ্ন পূরণের জন্য রাতদিন ১৮-২০ ঘন্টা লেখাপড়া করেছি। আমার বাবার আর্থিক অবস্থা ভাল ছিলনা। অনেক সময় আমি না খেয়ে অনেক দিন কাটিয়েছি। যেখানে খাওয়ার টাকা দিতে পরিবারের কষ্ট হতো সেখানে প্রাইভেট পড়ার মতো টাকা দিতে পারত না।
আমার কলেজের শিক্ষকরা আমার পারিবারিক কষ্টের কথা জেনে অনেকে আমাকে সাহায্য করেছে। আমার মামার অবদান ভুলার নয়। গতবছর করোনার সময় অনলাইনে ক্লাস করার মতো আমার ল্যাপটপ বা মোবাইল ছিলনা। আমার মামা আমাকে ফোন কিনে দিয়ে সাহায্য করেছে।

প্রশান্ত তার বাবা মায়ের স্বপ্ন পূরণের জন্য রাতদিন সবসময় বই নিয়ে পড়ে থাকত। পড়তে পড়তে অনেকদিন সকাল হয়ে গেছে। মসজিদে আজান হওয়ার পর অনেকদিন ঘুমুতে যায় সে। সে এলাকার কদম রসুল স্কুল থেকে এসএসসি এবং দিনাজপুর সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করে।

স্থানীয় বাসিন্দা চন্দন দেবনাথ, শামসুন নাহার সহ কয়েকজন বলেন, প্রশান্তের অভাবনীয় সাফল্যে আমরা এলাকার মানুষ খুশি। একজন দরিদ্র পিতার ছেলে মেডিক্যালে পড়ার সুযোগ পেয়েছে এটা ভাবতেও আনন্দ লাগছে। গোবরে যে পদ্মফূল জন্মায় প্রশান্ত তার উজ্জল দৃষ্টান্ত।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বড়গাঁও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রভাত কুমার সিংহ বলেন, আমার এলাকার একজন দিনমজুরের ছেলে মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে জেনে আমরা সকলে পুলকিত। সে আমাদের বড়গাঁও ইউনিয়ন বাসির গর্ব । তার লেখাপড়ার খরচ চালাতে প্রশাসনের পাশাপাশি এলাকার ধর্ন্যাঢ্য লোকজন এগিয়ে আসবেন এই প্রত্যাশা জানাচ্ছি।

জেলা প্রশাসক ড.কেএম কামরুজ্জামান সেলিম বলেন, আমাদের ঠাকুরগাঁও জেলার বেশকিছু শিক্ষার্থী এবার সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। আমরা মনে করি, যারা মেডিক্যালে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে তারা জেলার সবচেয়ে মেধাবী ছাত্র। অনেক দু:স্থ অসহায় ও অস্বচ্ছল পরিবারের সন্তানও এবার মেডিক্যালে ভর্তির চান্স পেয়েছে তাদের মেধার জোরে। যারা নিম্ন মধ্যবিত্ত, অস্বচ্ছল ও গরীব পরিবার থেকে এসেছে তাদেরকে ভর্তির বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য জেলা প্রশাসন সবসময় তাদের পাশে আছে। যারা ভর্তির জন্য আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন হবে তারা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাদেরকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করা হবে। তিনি আরো বলেন, আমরা চাই এসব শিক্ষার্থী আগামীতে দেশ ও দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করুক, বাবা মা আত্বীয় পরিজন সহ সকলকে ভাল রাখুক এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ দেখুন..